শিক্ষিত প্রহসন

1+

স্কুল – হ্যালো Child Care School।

পারুল – হ্যালো আমি পারুল মিত্র। আপনাদের স্কুলের Bengali টিচারের নিয়োগের বিজ্ঞাপন দেখলাম পত্রিকায় সে বিষয়ে ফোন করেছিলাম।

স্কুল – হুম বলুন।

পারুল – আমি আমার সি.ভি দিতে চাই কিভাবে দেব যদি বলেন online নাকি offline।

স্কুল – সে তো দেবেনই। আগে বলুন আপনার qualification background কি।

পারুল – মানে ঠিক বুঝলাম না।

স্কুল – আরে বুঝলেন না মানে। কোন বোর্ডে পড়াশুনা করেছেন।

পারুল – ওহ। আমার West Bengal বোর্ড।

স্কুল – ওহ। ওকে আপনি কাল সি.ভি নিয়ে চলে আসুন। বাকি কথা ইন্টারভিউ ওখানে হবে।

পারুল – আচ্ছা। ধন্যবাদ ।

(পর দিন)

প্রিন্সিপাল – গুডমর্নিং। মিস পারুল।

পারুল – সুপ্রভাত সকলকে।

প্রিন্সিপাল – আপনার সব documents এনেছেন ?

পারুল – হ্যাঁ, স্যার।

প্রিন্সিপাল – ওকে দিন। আর আপনার ব্যাপারে বলুন শুনি ।

পারুল – আমি পারুল মিত্র। পিতা শ্রী দিনেশ মিত্র। আমার বাড়ি দমদম-এ । আমার বিষয় বাংলা এম.এ উত্তীর্ণ হয় 2016 তে। বি.এড শেষ হয় ।

প্রিন্সিপাল – আচ্ছা। কিন্তু একটা problem হচ্ছে ।

পারুল – কি problem ?

প্রিন্সিপাল – দেখুন মিস মিত্র আপনার এডুকেশন কোয়ালিফিকেশনে % খুবই ভালো কিন্তু আপনার education background তো ইংলিশ মিডিয়াম নয়, so….. বুঝতেই পারছেন কি বলতে চাইছি।

পারুল –  হুম। বুঝেছি। কি আর বলব। বাংলা পড়ানোর জন্য এখন English background দরকার। ঠিক আছে। ধন্যবাদ।

প্রিন্সিপাল – ধন্যবাদ।

[বি.দ্র. – এভাবে প্রতিদিন এক বিরাট প্রহসনের সম্মুখীন হতে হয় অসংখ্য বাংলা মিডিয়ামের পড়া শিক্ষিত ছাত্র ছাত্রীকে।]

যেখানে বাংলার ভাষা পড়ানোর জন্য ও ইংরেজী জানা প্রয়োজন।

হাসি নয় বুকচাপা বিদ্রুপের বহ্নিশিখায় ঝলসে উঠছে আজকের শিক্ষিত বেকার যুবসমাজ। 

প্রতিদিন – প্রতিক্ষণ –

শুধুই প্রহসনে ভরা এ জীবন………।

রচনা – প্রিয়াঙ্কা

আপনার লেখা এখানে প্রকাশিত করার জন্য  নীচের বাটন-এ ক্লিক করুন

1+

Leave a Comment

error: Content is protected !!