নিঃসঙ্গতা

0

পাহাড়ের উপরিতলে দাঁড়িয়ে আমি একা সাথে আছে আমার প্রেমিকা নাম তার নিঃসঙ্গতা।

তাকে হঠাৎ আমি বলিয়া উঠিলাম তুমি কি আমায়ে বাসো ভালো

সে কিছুক্ষণ ভাবিয়া উত্তর দিলো, ভালোবাসা আবার কি হে প্রিয়।

হঠাৎ কোথার থেকে উদিত হলো মেঘ সে বলে উঠিল ভেবো না হে কিশোর তোমার আর নিঃসঙ্গতা সম্পর্ক জানো শরীর আর হৃদয়ের মত।

আমি বলিয়া উঠিলাম সে আবার কেমন সম্পর্ক।

মেঘ বলিয়া উঠিল যে শরীর চায় সে হৃদয় দেখে না, যে হৃদয় চায় সে শরীর দেখেনা।

ইতিমধ্যে আমি পাস ফিরিয়া দেখি নিঃসঙ্গতা নেই তাকে আমি প্রবল সুরে ডাক দিলাম কোথায়ে হে প্রিয়া কোথায় তুমি।

পাহাড় বলিয়া উঠিল সে তো চলিয়া গিয়েছে।

আমি রাগে কষ্টে তাকে গাল দিতে লাগিলাম। হঠাৎ দেখি পবন এসে আমার পানে মুচকি হেসে মেঘের হাত ধরে নিয়ে লইয়া গেলো,

আমি আরো কষ্টে ভেঙে পড়লাম,

তখনি প্রকৃতি এসে বলিল চিন্তা করো না হে সখা আমি তো আছি আমি ভালবাসি তোমায়, নিঃসঙ্গতা নয়ে নাই হলো তোমার।

আমি বলিলাম ভালবাসা কি জানো হে নারী সে বলিয়া উঠিল তুমি যখন আমায়ে চিনতে না তখন থেকে আমি তোমার হে প্রিয়।

আমি বলিয়া উঠিলাম হেসে এ আবার কি সম্পর্ক নারী।

সে করুন স্বরে বলিয়া উঠিল, তোমার আমার সম্পর্ক পবন আর মেঘের মতো, আলো আর ঐ ভোরে ফোটা ফুলের মতো, সেই হৃদয় আর অনুভূতির মতো।

আমি কান্নার সুরে বলে উঠিলাম হে প্রকৃতি তুমি হবে আমার প্রিয়া সে বলে উঠিল, আমি তো

তোমারই প্রিয়, আমি তোমার প্রিয়া।

রচনা – সৌভিক সিকদার

ভালো লাগলে অবশ্যয় লাইক করবেন 👇
0

আপনার লেখা এখানে প্রকাশিত করার জন্য  নীচের বাটন-এ ক্লিক করুন

0

1 thought on “নিঃসঙ্গতা”

Leave a Comment

error: Content is protected !!