অন্তিম পরিণতি

1+

তীব্র জনহীনতা একদিন গ্রাস করবে সমস্ত পৃথিবীর দিগ্বিদিক।

কেবল পড়ে থাকবে জন-মানবহীন ইট-কাঠ-পাথরের বসতি ও কিছু উচ্ছ্বিষ্ট।

নিঃস্তব্ধ হবে সমস্ত কোলাহল,ছিন্ন হবে জাল বোনা অগণিত স্বপ্ন,ভগ্ন হবে বহু প্রতিশ্রুতি।

তবুও অক্ষুণ্ন থাকবে কিছু স্মৃতির বেড়াজাল;জীবন্ত থাকবে আশা-আকাঙ্খা।

সেদিনও চন্দ্র-সূর্য উদিত হবে,জোয়ার-ভাঁটার তেজ থাকবে, ঝড়-বৃষ্টিও ভাসিয়ে দেবে নদীর দু-কূল।

থাকবে না কেবল হীনম্মন্যতায় লুব্ধ দৃষ্টিভঙ্গি,বৈষয়িক মোহ;থাকবে না হিংসা-দ্বন্দ্ব পরিপূর্ণ পৈশাচিক লোলুপতা।

তবে আবারও এমন দিন আসবে যেদিন নববধূর নবরূপের ন্যায় সেজে উঠবে পৃথিবী।

তার সেই সাজ হবে কোমল-স্নিগ্ধ শান্তিপূর্ণ মাতৃরূপের ন্যায়; পুনরায় তার মধ্যে প্রাণের সঞ্চার ঘটবে।

আবারও সৃষ্টি হবে মানবসমাজ,সৃষ্টি হবে মানবসৃষ্ট ন্যায়,নীতি নিয়ম।

শুধুমাত্র স্মৃতির গভীর স্বপ্ন নিয়ে রয়ে যাবে কিছু কাঙ্খিত হৃদয়ের পূর্ণ-অপূর্ণ আশা-আকাঙ্খা।

 রয়ে যাবে একে অপরের সঙ্গে কাটানো বেশ কিছু মূহুর্ত ও অন্তরঙ্গতায় পূর্ণ আবেগ।।

রচনা – বর্ণনা

ভালো লাগলে অবশ্যয় লাইক করবেন 👇
1+

আপনার লেখা এখানে প্রকাশিত করার জন্য  নীচের বাটন-এ ক্লিক করুন

1+

Leave a Comment

error: Content is protected !!