তোমারে করি নিবেদন

0

সকালের প্রভাত সংগীত হতে

তব সূচনা মোদের অন্তরে

তুমি জানিয়েছিলে “সহচরী”

কাছ থেকেই হৃদয়ের প্রেমানুভবকে জানতে

বলেছিলে তুমি

“সখী ভালবাসা কারে কয়”

দুপুরের সাজাদপুর কিংবা শিলাইদহের

সেই নির্জন পদ্মা পারে ভিরিয়েছিলে “সোনারতরী”

যেখানে ঠাই নাই বলে অনুশোচিত হয়েছিলে।

সেখানেই যে তুমি “মৃন্ময়ী” কে দেখেছিলে যার “সমাপ্তি” টেনেছো প্রেমের মধুরতায়।

আবার “সন্ধ্যাসংগীতের” সুরে প্রিয় “মানসী”কে নিয়ে “নিরুদ্দেশের যাত্রায়” পাড়ি দিতে চেয়েছিলে তুমি,

আজও ইচ্ছে টা প্রগাঢ় আছে যে কবি।

জোছনার রাতে মনে আছে তোমার নদীর ধারে বসে “অমিত” “লাবণ্য”কে “বন্যা” বলেছিল।

তুমিই তো সেই উৎকণ্ঠা জাগিয়ে ছিলে গো কবি।

মনে আছে তোমার?

যেখানে

“হোল্ড ইউর টাং এন্ড লেটমী লভ”-এর

“মায়া জালে আটকে গিয়েছিল।

বিনোদিনী”। আর “আশালতা” নিজের অধিকার বুঝিয়েছিল “মহেন্দ্রকে”।

জানি সব মনে আছে তোমার।

তবুও রসিকতা করেছ অনেক “লিপিকা” র সাথে

ভুলিনি কিছুই

কারণ তুমি যে রবি।

দীপ্ত তেজে তুমি মৃত্যুঞ্জয়

আর আমাদের অচিরাচরিত

বাঙালির পাঠক হৃদয়ে

সদা তব বিরাজিত।

হে গুরুদেব লহ প্রণাম।

২৫ শে বৈশাখের পুন্য জন্ম তিথিতে।

রচনা – প্রিয়াঙ্কা

আপনার লেখা এখানে প্রকাশিত করার জন্য  নীচের বাটন-এ ক্লিক করুন

0

Leave a Comment

error: Content is protected !!