আষাঢ়ের দিনে

0

আষাঢ়ের দিনে
জুনায়েদ খান প্রান্ত
————————–
আষাঢ় গগণে বাড়ছে মেঘেদের আনাগোনা,
আকাশ ছেয়ে আছে ঘন অন্ধকারে অবেলাতে।
অঝোরে ঝরছে বৃষ্টি বাতাস বেয়ে পুলকে দুলিয়া,
হৃদয় আমায় বেজে ওঠে পুরোনো স্মৃতি স্মরণ করিয়া।

বিস্তৃত মাঠঘাট জুড়িয়া বিদুৎ চমকায় আগুনে ঝলসিয়া,
নব তৃনদলে বাদলের সুর ভাসে মুক্ত পরিবেশে।
আবার এসেছে সবুজের আগমন বৃষ্টি ফোঁটার সাথে,
নতুন করে অরণ্য সাঁজে, এই কথা বলে মোর প্রাণ।

কৃষকের কন্ঠে প্রতিধ্বনিতে জেগেছে দেখ,
সংস্কৃতির আর পল্লীগীতির নিদর্শনের গান।
মাঠে গিয়েছে রাখাল কৃষক ফিরেছে কী তারা?
নাকি ঝরে আটকা পড়েছে মাঝপথে রহিয়াছে থমকিয়া।

গগণ জুড়িয়া শব্দের তীব্রতা বাড়ে পলকে,
হৃদয়ে মোর কম্পন লাগে ওঠি শিহরিয়া।
এই ভয়ে কোনঠাসা হয়ে লোকজন বসে আছে,
আজি নাহি আর বাহির হয় ঘর থেকে।

আষাঢ়ের দিনে নদীর দুকূল ভাসে জোয়ারের টানে,
মাঝির বুক কাঁপিয়া ওঠে থরথরিয়া ঢেউয়ের তালে।
ঘাটে যেতে পথ হয়েছে পিছল কাদামাখা,
না জানি পড়ি পা পিছলিয়া ভাঙ্গি হাঁড় তীরে গিয়া।

বেলা হতে শেষ নাহি আছে প্রহর আর বেশিরে,
তোরা আছিস কারা বাহিরে আয় ফিরে আয় ঘরেতে।
একটু পড়ে নামবে বুঝি ঝড় প্রকট আকারে দুমড়িয়ে,
উড়বে গাছপালা বৃষ্টির সাথে আষাঢ়ের হাওয়াতে।

0

Leave a Comment

error: Content is protected !!