কবিতা ” আমি মাস্ক”

1+

কবিতাঃ “আমি মাস্ক”
কলমেঃ আবু তাহের
তারিখঃ২৪.১১.২০
গদ্য কবিতা

আমার জন্ম বৃহৎ কোন কাপড়ের
ক্ষুদ্র কোন অংশ থেকে।
কাটিং মাষ্টারের ধারালো কেঁচির দুচোয়ালের মধুর মিলনে,
সুদক্ষ কারিগরের সেলাই মেশিনের
প্রচন্ড চাপে,
সুই সুতোর নিবিড় আলিঙ্গনে,
ক্ষত বিক্ষত অজস্র বন্ধনে
আয়রন মেশিনের প্রচন্ড তাপের
অসহ্য গরল পরশে।

আগে কিন্তু আমাদের কেউ
মাস্ক বলতো না,
বলতো কাপড় বা কাপড়ের টুকরো
এখন আমাকে সবাই মাস্ক বলে ডাকে
এতে আমি গর্বিত ও আনন্দিত।

তবে মন খারাপ হয় কখন জানেন,
যখন আমাকে নিয়ে ব্যঙ্গ করে।
আমার জন্ম নিয়ে কটুক্তি করে তখন, আমার জন্ম নাকি গরুর মুখের ঠুসি থেকে।
বলেন কি খারাপটাই না লাগে?
তবুও এই বলে সান্ত্বনা দিই নিজেকে,
জন্ম হোক যথাতথা কর্ম হোক ভালো।
বলেন আপনারা আমার কর্ম কি খারাপ?
খারাপ হলে কি নিজেকে শেষ করে
কখনো কি মনুষ্য জাতিকে জীবাণু ধুলা বালি থেকে রক্ষা করতাম?

আগে তেমন মুল্যায়ন পেতাম না
তবে করোনা ভাইরাস এসে আমাদের কদর বাড়িয়ে দিয়েছে বহুগুণে,
সেদিক থেকে আমি তার কাছে ঋনিই রয়ে গেলাম।

আমাকে যে টাকা দিয়ে কিনবে এবং ব্যাবহার করবে আমি তার সুরক্ষার জন্য জান কুরবান করে দিবো,
ধরে নিতে পারেন দাস যুগের গোলামের মতো
সারা জীবন বিলিয়ে দিব মালিকের খেদমতে তবুও বেইমানি করবোনা।

তবে বেইমানি করতে না চাইলে ও
মানুষের জন্য বাধ্য হই করতে।
যেমন কিছু অসাধু কারিগর যেমন
তেমন কাপড়ে তৈরি করছে আমাদের,
এখানে আমাদের কি করার আছে বলুন?
তারা নিজেদের জাতির ধ্বংসের জন্য তারাই তো দায়ি।
ঐ মানুষের জন্যই আজ আমাদের সুনাম কিছুটা নিন্মমুখি ও বটে।

আমাদের কাছে আবার কোন ভেদাভেদ নেই বুঝলেন?
যার নাকের ডগায় যাই চৌকষ
প্রহরীর মতো প্রতিরক্ষা দিই সারাক্ষণ,হোক সে ভিন্ন ধর্মের বা পেশার,বড়লোক কি গরীব।

তবে আমাদের ও তো একটা জীবন আছে নাকি?
একটানা কাজ না দিয়ে মাঝে মাঝে
তো ওয়াশে দিয়ে ফুরসত দিতে ও পারেন।
তাহলেই তো নব উদ্দামে কাজটা করতে পারি।

আসলে পৃথিবীতে কোন কিছুই
তুচ্ছ নয়।
জানেন কি আমাকে আধুনিকায়নের
জন্য কতো ভাবুকরা লেগে আছে আমার পিছে?
কতো মনুষ্য জাতির কর্মসংস্হান
আমাদের তৈরী থেকে?

করোনা তোকে ধন্যবাদ
তোর আগমনে আমি আজ ধন্য,
তুই না আসলে হয়তো পৃথিবীতে আমার পরিচিতি এতো সহজে হতো না।
তবে ভাবিসনা তোদের মতো ভাইরাস দের আমরা নিমন্ত্রণ করবো?
কারন এই মনুষ্য জাতি আমাদের জন্মদাতা
আর আমরা চাইবোনা তোদের মতো ভাইরাসের সম্মুখীন এরা হোক
তবুও তারা আমাদের ব্যবহার করুক আর না করুক।
তবে আমার জন্মদাতা মনুষ্য জাতির প্রতি আমাদের কিছু কথা আছে আর
তাহলো শুধু করোনা নয় এমন লক্ষ কোটি ভাইরাস প্রতিনিয়ত বাতাসে ঘুরে বেড়ায়।
কোন না কোন মানুষ সেটা বহন করে, আর ধুলাবালির কথা তো বাদই দিলাম।
তাই আসুন আমাদের ব্যবহার করুন
সুস্হ থাকুন।

 

1+

Leave a Comment