বলির পাঁঠা

0

শোষন,

বাড়ছে অন্তহীন গতীতে।

অত্যাচার,

নিয়ন্ত্রন হারিয়ে চলেছে।

লালসা,

লালায় লক লক করছে।

প্রতারনা,

জাতীয় পুরস্কার পাচ্ছে।।

তবু এ জীবন-

অপ্রান পাথরের মতো রাস্তায় পড়ে থাকে।

শোষন জুতো-

ক্ষত বিক্ষত করে দিয়ে যায় তার দেহ।।

প্রতিবাদ,

চাপা পড়েছে জমাট বাঁধা রক্ত।

প্রতিরোধ,

তলিয়ে গেছে অতল তলে।

প্রতিঘাত,

ধুলোর সাথে মিশে গেছে।

অনুভূতি,

আজ তার কোন অস্তিত্ব নেই।।

তবু বেশ থাকি-

নিরস কল্পনায় ডুবে মুক্ত শ্বাস খুঁজি।

চুপ থেকে থেকে-

ভুলেছি প্রতিবাদের প্রাান শক্তিকে।

আইন,

ঝুপড়ির ধারে ডাসপিন বোঝাই।

শিক্ষা,

প্রহশনের চূড়ান্ত রুপ।

চিকিৎসা,

ফুটপাতে ঢেলে সেল সেল সেল।

মানবতা,

মানুষের মন থেকে মুছে গেছে।।

তবু আমরা-

মোহান্ধে বলির পাঁঠা সেজে বসে থাকি।

শ্যাদ্ধের পিন্ডেের ন্যায়-

শোষন, অত্যাচার,প্রতারনা জোট বাঁধে।

মানুষ হারিয়েছে-

বাঁচার ঠিকানা প্রতিবাদের সাহস।

শহস্র মৃত্যু দেখে-

আতঙ্কে আতনাদ করে উঠি………..।।

 

0

Leave a Comment

error: Content is protected !!